Breaking

Tuesday, May 4, 2021

স্বস্তি জানা কে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে বাড়িতে ঝুলিয়ে দেওয়া হলো তার দেহ ।#justiceforswasatijana

 স্বস্তি জানা কে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে বাড়িতে ঝুলিয়ে দেওয়া হলো তার দেহ ।#justiceforswasatijana


আজকে এমন এক নিন্দনীয় ঘটনা হয়েছে যেটি একটি মায়ের কোল খালি করে দিয়েছে।


ঘটনাটি হল পশ্চিম মেদিনীপুরের। পশ্চিম মেদিনীপুরের এক কলেজে কলেজটির নাম ডেবরা কলেজ সেই কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয় পরে নিশংস ভাবে তাকে হত্যা করা হয় এবং তাকে ঝুলিয়ে দেওয়া হয় ।

Swasti Jana was brutally raped and her body was hung at home. #Justiceforswasatijana
 স্বস্তি জানা কে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে বাড়িতে ঝুলিয়ে দেওয়া হলো তার দেহ ।#justiceforswasatijana



সূত্রে খবর পাওয়া গেছে যে স্বস্তি জনা #justiceforswasatijana সেদিনকে বাড়িতে একা ছিল তার বাড়িতে কেউ ছিল না এই সুযোগে কিছু নরপিশাচ এই মেয়েটির সাথে 

নোংরামি করে এবং তার সাথে ধর্ষণ করে এবং তাকে নিঃসংশ ভাবে হত্যা করে তার পরনের কাপড় দিয়ে তাকে ঝুলিয়ে দেয়া হয় ঘরের মধ্যেই।


মেয়েটির নাম স্বস্তি  জানা মেয়েটির বয়স জানা গেছে কুড়ি বছর 20 ।মেয়েটিকে এক পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তাকে এই নরপিশাচ গুলো খুব হিংস্র ভাবে এবং নিশংস ভাবে তার সাথে ধর্ষণ করে এবং যাতে তারা ধরা না পরে। পুলিশ তাদের দোষারোপ না করতে পারে এবং পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা না করতে পারে। তাই জন্যই নরপিশাচ গুলি এই বাচ্চা মেয়েটিকে তারই পরনের কাপড় দিয়ে তার গলায় পরিয়ে তাকে ঝুলিয়ে দেয় হয় সেই বাড়িটিতে।


খবরটি যখন থানায় যায় তখন পুলিশ এসে ইতিমধ্যে তিনজন অপরাধীকে গ্রেফতার করে

তার সাথে এটাও জানা গেছে যে এইসব অপরাধীগুলো তাদের বাড়িতে মিস্ত্রি কাজ করতে এসেছিলেন।


এবং সবার থেকে লজ্জিত এবং নিন্দনীয় ব্যাপার


এই তিনজন অপরাধী মধ্যে একজন মহিলা অপরাধীও ছিলেন।


আমরা এটা ভেবে অবাক মহিলা হয়ে একটি মেয়েকে ধর্ষণ করতে তিনি কীভাবে সাহায্য করলেন অপরাধীদের?

 উনার কি একটুও বিবেকে বাধলোনা যে উনি একটি মেয়ে হয়ে আরেকটি মেয়েকে কীভাবে ধর্ষণ হতে দিচ্ছে। 


শুধু ধর্ষণ হতে দেননি বরং ধর্ষকরা যখন এই মেয়েটির সাথে ধর্ষণ করছিলেন তখন এই মহিলাটি তাদের গার্ড দিচ্ছিল যাতে কেউ বুঝতে না পারে যে বাড়িটাতে কি হচ্ছে।#justiceforswasatijana


মানুষের মধ্যে কি এখন মনুষত্ব টাও নেই যে এক মহিলা হয়ে আরেকটি মেয়েকে কিভাবে তিনি মৃত্যুর কোলে ঠেলে দিলেন।


এখন সব্বাই চাইছে যে এই অপরাধী গুলির শাস্তি হোক তাদের যেন আইন ফাঁসির সাজা দেয়।


এবং এখনো অনেক মানুষ আছে যারা সত্যিই মানুষ বলে গণ্য।


 তারা আছে বলেই এখনও এই পৃথিবীতে বিচার নামের জিনিসটি বেঁচে আছে।

 উনারা টুইটারে এবং সোশ্যাল মিডিয়াতে এই মেয়েটি যাতে বিচার পায় সেই নিয়ে উনারা এই মানুষজন রা এই খবরটিকে ভাইরাল করছেন যাতে করে আমাদের মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত এ খবরটি যায় এবং খুব তাড়াতাড়ি অপরাধীগুলো শাস্তি পাক।


আমি আপনাদের অনুরোধ করবো আমাদের এই খবরটিকে সোশ্যাল মিডিয়া টুইটার এবং আপনার সমস্ত রকম গ্রুপে শেয়ার করুন যাতে করে এই মেয়েটি খুব তাড়াতাড়ি বিচার পায়।


 এবং অপরাধীদের শাস্তি হোক এবং তাদের যেন ফাঁসির শাস্তি দেওয়া হোক।


নেতা মন্ত্রীদের কাছে বিক্রি হয়ে যাওয়া  মিডিয়া চ্যানেল গুলি


আর সবার থেকে খারাপ খবর হল যে আমরা যেসব মিডিয়া চ্যানেলটি কে সবথেকে বেশি বিশ্বাস করি এইসব বড় বড় মিডিয়া চ্যানেলটি কিন্তু এখনও অবধি এই খবরটি একবারের মত তাদের মিডিয়া চ্যানেলে দেখায় নি।


তারা শুধু একটি জিনিসই জানে যে তারা কিভাবে নিজের মন্ত্রী নেতাকে সবার থেকে আগে এবং সর্বোচ্চ ভাবে রাখতে পারবে।

তারা শুধু কে কোথায় জিতল কটা সিট পেল সেটা নিয়ে ব্যস্ত। এরা একবারের মতো জানতে চাননি যে রাজনীতির পরেও মনুষ্যত্ব নামের একটি জিনিস আছে যেটা আমাদের দেশে সবাইকে জানাতে হবে। কিন্তু ওনারা একবারের মত এই খবরটি নিজের মিডিয়ায় চ্যানেলে দেখা নেই

 ছি এরকম মিডিয়া চ্যানেল কে যারা শুধু নেতা মন্ত্রীদের জন্য কাজ করে। যারা শুধু নেতা-মন্ত্রীদের টাকার জন্য আমাদের দেশে যে রকম পরিস্থিতি চলছে এবং অপরাধ হচ্ছে সেটিকেও দেখাচ্ছেন না জনতার কাছে।


আপনার এলাকার সমস্ত খবর পেতে গুগলের সার্চ করুন natinol.com । আর আমাদের পাশে এই ভাবেই থাকুন এবং সত্য খবর পড়ুন


No comments:

Post a Comment